Alliance for Bangladesh Worker Safety

বাংলা

মানদন্ড এবং পরিদর্শন

উদ্দেশ্য
অ্যালায়েন্স তার সদস্য কোম্পানিগুলোর জন্য পণ্য উৎপাদনকারী বাংলাদেশের সমস্ত তৈরি পোশাক কারখানারগুলোতে নিরাপত্তা বিষয়ক মূল্যায়ন পরিচালনায় প্রতিশ্রুতবদ্ধ । কারখানার মালিকদের তাদের কারখানায় অগ্নি এবং ভবন নিরাপত্তা সংক্রান্ত কারিগরী দিকগুলো অবহিতকরণের জন্য এবং পোশাক শিল্প শ্রমিকদের পদ্ধতিগতভাবে নিরাপত্তা পরিস্থিতির টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে একটি দ্রুত কর্ম পরিকল্পনা প্রণয়নের জন্য স্বতন্ত্র কোয়ালিফাইড অ্যাসেসমেন্ট ফার্ম (QAFs) কর্তৃক এই সমস্ত মূল্যায়ন পরিচালিত হয়েছে ।

কৌশলগত উদ্যোগ

অগ্নি নিরাপত্তা এবং অবকাঠামোগত অখন্ডতা বিষয়ক মানদন্ড: অ্যালায়েন্সের অগ্নি নিরাপত্তা এবং অবকাঠামোগত অখন্ডতা বিষয়ক মানদন্ড প্রণয়ন করা হয়েছে যৌথভাবে অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেফটি এবং বাংলাদেশ অ্যাকর্ড অন ফায়ার এন্ড বিল্ডিং সেফটি ( অ্যাকর্ড )- এর একদল কারিগরি বিশেষঞ্জ কর্তৃক । দেশব্যাপি তৈরি পোশাক কারখানাগুলোর মূল্যায়নে সামঞ্জস্য বজায় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অ্যালায়েন্স মানদন্ডের কারিগরি শর্তাবলীকে এনটিপিএ (NTPA)-এর জন্য বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনলোজি (বুয়েট) কর্তৃক প্রণয়নকৃত কারখানা মূল্যায়ন নির্দেশাবলীর শর্তাবলীর সঙ্গে সংগতিপূর্ণ করা হয়েছে । এই প্রক্রিয়া চলাকালীন সময় – আইএলও-এর সহযোগীতায় – বাংলাদেশ তৈরি পোশাক শিল্প কারখানার মালিকদের, বুয়েট অধ্যাপকদের এবং অন্যান্য কারিগরি বিশেষঞ্জদের মূল্যবান মতামত অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে । এনটিপিএ-এর সঙ্গে সংগতি বজায় রেখে, এই মানদন্ডটি ২০০৬ বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড (বিএনবিসি) এর শর্তাবলীর ওপর ভিত্তি করে গঠিত, যেখানে প্রয়োজন এবং বাস্তবতার নিরিখে শক্তিশালী শর্তাবলী রয়েছে ।

অ্যালায়েন্সের কারখানা পরিদর্শন: কিভাবে মূল্যায়ন পরিচালিত হবে এবং প্রাপ্ত তথ্য কিভাবে রিপোর্ট করতে হবে এবং কার দ্বারা সংগঠিত হবে এ বিষয়ক স্বচ্ছ নির্দেশনা এবং কারিগরি শর্তাবলী প্রদানের লক্ষ্যে বিদ্যমান কারখানাগুলোর জন্য প্রাথমিক অগ্নি নিরাপত্তা এবং অবকাঠামোগত অখন্ডতা বিষয়ক অ্যালায়েন্স অ্যাসেসমেন্ট প্রটোকল –এর একটি খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে । মূল্যায়নের পরিসর এবং সময়কাল, মূল্যায়ন এবং রিপোর্টকরণের শর্তাবলী ও প্রক্রিয়া, এই প্রক্রিয়ায় শ্রমিক এবং ইউনিয়ন এর সম্পৃক্ততা এবং গুরুতর নিরাপত্তা ঝুঁকি বিষয়ে কিভাবে সাড়া প্রদান করতে হবে সে বিষয়ক পদ্ধতি–এর বিষয়গুলো অ্যাসেসমেন্ট প্রটোকলে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে । যে সমস্ত কিউএএফ প্রকৌশলীগণ অ্যালায়েন্সের পক্ষ হয়ে এই মূল্যায়ন পরিচালনা করছেন তাদের অপারেশনাল গাইড- এ উল্লেখিত প্রটোকল অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে । পরিদর্শন শেষ হলে, কিউএএফ (QAFs) প্রাপ্ত তথ্য এবং প্রমানাদি ফেয়ার ফ্যাক্টরিজ ক্লিয়ারিং হাউস (FFC)-এ পাঠিয়ে দেয় । এরপর ফলস্বরূপ প্রাপ্ত রিপোর্টসমূহের গুনাগুন যাচাই করে কারখানায় পেশ করা হয় এবং অ্যালায়েন্স ওয়েবসাইটে পোষ্ট করা হয় ।

শেয়ার্ড ফ্যাক্টরি পরিদর্শন: অ্যাকর্ড অ্যালায়েন্সের উভয়ের জন্য পণ্য উৎপাদনকারী কারখানাগুলোতে অ্যাকর্ড যদি পরিদর্শন করে থাকে তাহলে অ্যালায়েন্স পুনরায় পরিদর্শন করবেনা । বরং কারখানার অগ্রগতি যাচাইয়ের জন্য অ্যাকর্ডের পরিদর্শন প্রতিবেদন এবং কারেকটিভ অ্যাকশন প্ল্যান (CAP) গ্রহন করবে । কিন্তু, যদি, অ্যালায়েন্স এই বিষয়ে অবগত হয় যে – চুড়ান্ত পরিদর্শনের মাধ্যমে, যা নিম্নে উল্লেখ করা হয়েছে, অথবা অন্য উপায়ে – সর্বচ্চো অথবা উচ্চ অগ্রাধিকার প্রাপ্ত ইস্যূগুলো অ্যাকর্ড কর্তৃক পরিদর্শনকৃত শেয়ার্ড কারখানায় তুলে ধরা হয়নি, সেক্ষেত্রে অ্যালায়েন্স বিষয়টি অ্যাকর্ডের সঙ্গে আলোচনা করবে । অ্যালায়েন্স এই সমস্ত ইস্যূগুলোর সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ক্যাপ ক্লোজার ঘোষণা প্রদান বন্ধ রাখবে ।

অ্যাকর্ডের সংস্কার প্রচেষ্টার অধিনে যে সমস্ত শেয়ার্ড কারখানায় ক্যাপ ক্লোজার ঘোষিত হয়েছে যে সমস্ত কারখানায় অ্যালায়েন্স একটি ফাইনাল ভেরিফিকেশন ভিজিট (এফভিভি) করবে । এই এফভিভি-এর উদ্দেশ্য হলো এটা যাচাই করা যে অ্যাকর্ড-এর প্রাথমিক ক্যাপ-এ উল্লেখিত সমস্ত আইটেম উক্ত কারখানা সম্পন্ন করেছে কিনা, এবং এটা নিশ্চিত করা যে উক্ত কারখানায় অনিস্পন্ন কোনো সর্বচ্চো অথবা উচ্চ অগ্রাধিকার প্রাপ্ত কোনো অতরিক্ত আইটেম নেই যা অ্যাকর্ডের প্রাথমিক ক্যাপ –এ উল্লেখ করা ছিলোনা ।

সদস্য কোম্পানির সোর্সিং নীতি
কারখানা থেকে পণ্য ক্রয় হ্রাস অথবা বন্ধের সিদ্বান্ত চুড়ান্তভাবে নির্ভর করে প্রত্যেক অ্যালায়েন্স সদস্য কোম্পানির একতরফা ব্যবসায়িক সিদ্ধান্তের ওপর । অ্যালায়েন্সের শুরু থেকে, সদস্য কোম্পানিগুলো যে সমস্ত কারখানা থেকে বর্তমানে পণ্য ক্রয় করছে সে সমস্ত কারখানাগুলোর নিবন্ধন করিয়ে থাকে – এই সমস্ত কারখানার নাম প্রতি মাসে ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়ে থাকে । প্রাথমিক পরিদর্শন প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে, অ্যালায়েন্স কারখানাগুলোকে পণ্য উৎপাদনের জন্য অনুমোদন প্রদান করে থাকে । প্রাথমিক পরিদর্শনের পর কারখানার অনুমোদন পরিবর্তনযোগ্য এই শর্তে যে যেহেতু কারখানার ভবনের নিরাপত্তা নির্ভর করে অনেকগুলো কারণের ( factors) ওপর, যার ভেতর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে: উন্নয়ন এবং কারেকটিভ অ্যাকশন প্ল্যানের (CAP) অনুমোদন; রেমিডিয়েশন সহ এবং প্রতিটি CAP আইটেম ফলো- আপ করা এবং নন-কম্প্লায়েন্স জনিত কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া কারখানার ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত প্রদান করা ।

অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন

বিস্তারিত এফএকিউ –এ দেখুন অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর

দ্রুত যোগাযোগ

অনুগ্রহপূর্বক সাধারণ এবং গণমাধ্যম ঊভয় অনুসন্ধানের জন্য এখানে ক্লিক করুন ।