Alliance for Bangladesh Worker Safety

বাংলা

অ্যালায়েন্সের ১৮ মাসের হালনাগাদ

মার্চ ৯, ২০১৫
অ্যালায়েন্সের ১৮ মাসের হালনাগাদ

 

প্রিয় সহকর্মীবৃন্দ

বাংলাদেশের পোশাক শিল্প লক্ষ লক্ষ মানুষের ভালোভাবে বেচে থাকার একটি উপায় । এটি কেবলমাত্র জীবিকা অর্জনেরেই একটি পথ নয়, বরং তারা তাদের পরিবার এবং তাদের দেশের জন্য এক অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক সুযোগের সৃষ্টি করছে । যে উদ্দীপনা এবং দৃঢ়তা নিয়ে নারী এবং পুরুষরা তৈরি পোশাক শিল্পে কাজ করে যাচ্ছে তাতে এই খাতের এবং বাংলাদেশের অর্থনীতির তুলনাহীন উন্নয়ন ঘঠছে । উন্নয়নের নতুন স্তরে উত্তরণের যে ভিত্তিভূমি তৈরি হয়েছে তা অন্য কোনোভাবেই সম্ভব ছিলোনা ।

কতিপয় ট্র্যাজেডির কারণে বাংলাদেশে যে পরিবর্তন এসেছে তা সারা বিশ্বের তৈরি পোশাক শিল্পেই এক পরিবর্তন এনেছে । নিরাপত্তা মানদন্ড, শ্রমিক নিরাপত্তা এবং শ্রমিক অধিকারের প্রশ্রে এখন সবার লক্ষ্যই এক । বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি অংশিদ্বাররা যদি শ্রমিকদের উন্নয়নের প্রতি গুরুত্ব প্রদান করেন তাহলে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প চিরকালের জন্য বদলে যাবে ।

কোনো পোশাক শিল্প শ্রমিককে যেন নিরাপদ কর্ম পরিবেশ এবং একটি পে-চেক এই দুটির একটিকে আর বেছে নিতে না হয় তা নিশ্চিত করতেই ২০১৩ এর জুলাইয়ে গঠিত হয়েছে অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেফটি । তৈরি পোশাক শিল্পের নিরাপত্তা উন্নয়ন, প্রত্যেকটি পোশাক শিল্পে পরিদর্শন নিশ্চিতকরণ, প্রত্যেক শ্রমিককে প্রশিক্ষণ প্রদান এবং তাদের ক্ষমতায়ন করা, প্রত্যেকটি কারখানার মালিক কর্তৃক সংস্কারের কাজ হাতে নেয়ার যে প্রচেষ্টা অ্যালায়েন্স এবং সদস্য কোম্পনিরা হাতে নিয়েছেন আমি তার জন্য অত্যন্ত গর্বিত ।

যদিও আরও অনেক কাজ করে যেতে হবে, তারপরেও আমি ২০১৩ থেকে এ যাবত পর্যন্ত আমাদের প্রধান অর্জনগুলো সবার দৃষ্টিগোচর করার এবং আমরা এ বছর কোন কাজগুলোকে প্রাধান্য দেব তা জানানোর সুযোগ গ্রহন করতে চাই ।

সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি ডাউনলোড করুন এখানে (পিডিএফ)

অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন

বিস্তারিত এফএকিউ –এ দেখুন অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর

দ্রুত যোগাযোগ

অনুগ্রহপূর্বক সাধারণ এবং গণমাধ্যম ঊভয় অনুসন্ধানের জন্য এখানে ক্লিক করুন ।