Alliance for Bangladesh Worker Safety

বাংলা

আরও ছেচল্লিশটি অ্যালায়েন্স কারখানা পর্যাপ্ত সংশোধনী কর্মপরিকল্পনা সম্পন্ন করেছে; অন্য দুটি কারখানা স্থগিত

.

আগস্টে কারখানাগুলোর ক্যাপ সম্পন্নকরণের হার প্রায় দ্বিগুন বৃদ্ধি পেয়েছে

Dঢাকা, বাংলাদেশ - অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেফটি আজকে এই মর্মে ঘোষণা প্রদান করছে যে আগস্ট মাসে, অ্যালায়েন্স অধিভুক্ত আরও ৪৬টি কারখানা তাদের সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনায় (ক্যাপ) উল্লেখিত সমস্ত মেরামত কাজ সম্পন্ন করেছে, যার ফলে ক্যাপ- সম্পন্নকারী কারখানার মোট সংখ্যা দাঁড়ালো ১৬৬ ।

“অ্যালায়েন্স-অধিভুক্ত কারখানাগুলো তাদের প্রয়োজনীয় সংস্কার কাজ দ্রুত গতিতে সম্পন্ন করছে, এবং শ্রমিক নিরাপত্তাকে যে সমস্ত কারখানা অগ্রাধিকার প্রদান করেছে তাদের স্বীকৃতি প্রদান করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত,” বলেছেন অ্যালায়েন্স কান্ট্রি ডিরেক্টর, সাবেক রাষ্ট্রদূত জিম মরিয়ার্টি । “ আমরা আত্নবিশ্বাসী যে আগামী বছরের মধ্যেই আমাদের অধিকাংশ কারখানাগুলোতে সংস্কার কাজ সম্পন্ন হবে, এবং আমরা এখন বিশ্বস্ত পার্টনারদের সাথে কাজ করছি যেন আমাদের কারখানা পরিদর্শন, নিরাপত্তা উন্নয়ন এবং শ্রমিক প্রশিক্ষণ ও ক্ষমতায়ন উদ্যোগগুলো দীর্ঘ মেয়াদে টিকে থাকে” ।

সংস্কার কাজকে অগ্রাধিকার প্রদানে ব্যর্থ কারখানার ব্যাপারে অ্যালায়েন্স আপোষ না করার সিদ্ধান্তে অবিচল রয়েছে । আগস্টে, আরও দুটি নতুন কারখানার সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক চ্ছিন্ন করেছে অ্যালায়েন্স, এবং এ যাবত স্থগিত কারখানার মোট সংখ্যা দাড়ালো ১৫৮টি ।

স্থগিত কারখানার সম্পূর্ণ তালিকা এবং যে সমস্ত কারখানা পর্যাপ্ত সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনা সম্পন্ন করেছে তাদের তালিকা পাবেন অ্যালায়েন্স ওয়েবসাইট –এ |

অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন

বিস্তারিত এফএকিউ –এ দেখুন অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর

দ্রুত যোগাযোগ

অনুগ্রহপূর্বক সাধারণ এবং গণমাধ্যম ঊভয় অনুসন্ধানের জন্য এখানে ক্লিক করুন ।