Alliance for Bangladesh Worker Safety

বাংলা

সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনার অধিকাংশ সম্পন্ন করেছে আরও দশটি অ্যালায়েন্স কারখানা; অন্য এগারোটি কারখানা স্থগিত

.

তাৎপর্যপূর্ণ সংস্কার অগ্রগতি সহকারে অ্যালায়েন্সের নতুন বছর শুরু

ঢাকা, বাংলাদেশ – অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেইফটি আজকে এই মর্মে ঘোষণা প্রদান করছে যে আরও দশটি অ্যালায়েন্স অধিভূক্ত কারখানা তাদের সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনায় (ক্যাপ) উল্লেখিত সমস্ত মেরামত কাজ সম্পন্ন করেছে, এবং এ যাবত সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনা সম্পন্ন করা কারখানার মোট সংখ্যা দাড়ালো ৬০ ।

এ সমস্ত কারখানাগুলো হলো: কর্ণফুলি সুজ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (গার্মেন্টস), রিলায়েন্স ওয়াশিং ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড, ক্যানভাস গার্মেন্ট (প্রাইভেট) লিমিটেড, লানো (বিডি) লিমিটেড, স্মার্ট জ্যাকেট (বিডি) লিমিটেড, সেহান স্পেশালাইজড টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড, পার্ল গার্মেন্ট কোং লিমিটেড, ইস্টার্ন নিট ওয়্যার লিমিটেড, শিকদার প্রিন্টিং এবং লেনি ফ্যাশন লিমিটেড (ইউনিট -২) ।

“আমরা এই দশটি কারখানাকে স্বাগত জানাতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত যে তারা শ্রমিকদের নিরাপত্তা রক্ষার প্রতিশ্রতিকে সংস্কার কাজের মাধ্যমে বাস্তবে রূপদান করেছে,” বলেছেন অ্যালায়েন্সের এ-দেশীয় পরিচালক জেমস এফ. মরিয়ার্টি । “তাদের এই সফলতা অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে এবং একই সঙ্গে এটি প্রমান করে যে, চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে রূপান্তরমূলক পরিবর্তন আনয়ন সম্ভব” ।

এছাড়াও যে সমস্ত কারখানা সংস্কার কাজে ব্যর্থ হবে তাদের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করবে অ্যালায়েন্স । জানুয়ারীতে, আরও ১১টি কারখানাকে স্থগিত ঘোষণা করেছে অ্যালায়েন্স, এবং এখন পর্যন্ত স্থগিত কারখানার মোট সংখ্যা দাড়ালো ১২৮ ।

স্থগিত কারখানার পূর্ণাঙ্গ তালিকা এবং সংশোধনী কর্ম পরিকল্পনার অধিকাংশ সম্পন্নকারী কারখানার তালিকা পাবেন অ্যালায়েন্স ওয়েবসাইটে ।

অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন

বিস্তারিত এফএকিউ –এ দেখুন অ্যালায়েন্স সম্পর্কে বারংবার করা প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর

দ্রুত যোগাযোগ

অনুগ্রহপূর্বক সাধারণ এবং গণমাধ্যম ঊভয় অনুসন্ধানের জন্য এখানে ক্লিক করুন ।